আগুন
#সুশান্ত কুমার সাঁতরা

তখন শীতকাল। বিকাল বেলায় ছাদে উঠেছি। হালকা শীতের আমেজ বেশ লাগছে। আকাশ ও পরিস্কার। তারারা উঠবে উঠবে করছে। আমি আর আমার স্ত্রী ছাদে প্রেমালাপে মত্ত। ভালোই লাগছিল বিকেল টা।

আমার বাড়ি টা রেল স্টেশন এর লাগোয়া। সেখানে স্টেশনের গা ঘেঁষে বেশ কিছুটা জায়গা জুড়ে বস্তি রয়েছে। সেখানে বেশ কিছু লোকের বাস।সেটি আমার বাড়ি র পেছন দিকটা। দুতলা বাড়ির ছাদ থেকে দেখা যায় বস্তি টা। হঠাৎ দেখি পশ্চিম দিকের গাছ গুলো কে ছাড়িয়ে গল গল করে উপরে উঠে যাচ্ছে কালো ধোঁয়া। তারপরে ই দেখতে পাই আগুনের হলকা। দেখি বস্তি টাতে আগুন লেগেছে। তাপও যেন আসছে হাল্কা হাল্কা আমার কাছে।

নতুন ফোন কিনেছি। স্যামসুং ফোর জি। আহা! কি দৃশ্য। তাড়াতাড়ি তে ক্যামেরা বন্দি করতে হবে। আমার ফেস বুকে ফ্যান ফলোয়ার তো কম নেই। পোস্ট করলেই লাইকের বন্যা। দাউ দাউ করে জ্বলছে আগুন। গল গল করে উঠছে ধোঁয়া। কালবিলম্ব না করে ফটাফট ফটো তুলে ফেললাম গোটা কয়েক। আর তৎক্ষনাৎ পোস্ট। তার পরেই লাইক কমেন্টস আর ব্যস্ততা। এর মধ্যে কিছুক্ষন পরেই কানে আসল ফায়ার ব্রিগেডের শব্দ। কেউ বোধহয় ফোন করে হবে। ঝুপড়ি গুলোতে আগুন লাগে কেন? কে জানে? আর ও একটা ফটো তুললাম। ভালো একটা ক্যামেরা কিনতে হবে। খুব ভালো জুমিং হচ্ছে না এই স্মার্ট ফোনের ক্যামেরা দিয়ে।

হঠাৎ একটা আওয়াজ হলো। দুম করে। আমার ঘর থেকেই আসলো মনে হলো। পরক্ষণেই দেখি রান্না ঘরে থেকে ধুঁয়া আর আগুন। পরি কি মরি করে ছুটলাম। গিন্নি বোধহয় গ্যাস খুলে এসেছিলো নাকি? দৌড়ে গিয়ে মেইন সুইচ অফ করি। চেঁচাতে থাকি আগুন আগুন বাঁচাও। দু একজন এগিয়ে আসে। ছুটে রান্না ঘরের দিকে যাই। নেভাতে হবে তো আগুন। আগুন এখন যে নিজের ঘরে লেগেছে । তাপ টাও এখন যেন একটু বেশিই লাগছে।

এসবের মধ্যে ই হঠাৎ ই লক্ষ করলাম, উল্টো দিকের ছাদ থেকে মোবাইলের ফ্ল্যাস হচ্ছে ঘন ঘন। ওরা আমার বাড়ির আগুন লাগার ফটো তুলছে। ভাই ওদের ও তো ফ্যান ফলোয়ার আছে।

Copyright©Susanta Santra 2017
শান্তর লেখা সমুহ থেকে।
ধন্যবাদ

bengali@pratilipi.com
080 41710149
সোশাল মিডিয়াতে আমাদের ফলো করুন
     

আমাদের সম্পর্কে
আমাদের সাথে কাজ করুন
গোপনীয়তা নীতি
পরিষেবার শর্ত
© 2017 Nasadiya Tech. Pvt. Ltd.