প্রতিফলন


ভালবেসে শহরের মেয়ে ঐশি বিয়ের পর আদির হাত ধরে তার গ্রামের বাড়িতে এসে ওঠে।যে মেয়ে বিয়ের আগে জল গড়িয়ে খেত না সেই মেয়েই এখন কাঠ ঘুঁটে জ্বেলে রান্না করে ,ছাই দিয়ে হাঁড়ি কড়ার কালি মাজে,সবার জামাকাপড় কাচে,সারা ঘর বাড়ি পরিষ্কার করে,জ্বলানি জোগাড় করে ,গ্রামের মাঝে পঞ্চায়েতের বসান কল থেকে সবার জন্য জল আনে।আবার সন্ধ্যের পর পাড়ার এক দল ছেলে মেয়ে কে টিউশন পড়িয়ে রাতে রান্না খাওয়ার শেষে চাকরির পরীক্ষার বসার জন্য প্রস্তুতি নেয় ,নেট খুলে বিভিন্ন বিষয়ে পড়াশুনা করে।ঐশি আসার পর থেকে আদির এক গ্লাস জল দরকার হলেও সে ঐশিকে ডাকে।আদি সবসময় চায় তার বয়স্ক মা বাবাকে ঐশি যেন তোলা কাপড়ে রাখে,ঐশি কোনদিনও আদির চাওয়ায় বাধা দেয়নি।

রবিবার সন্ধ্যে সাত টা।ঐশির আজ টিউশন নেই তাই তাড়াতাড়ি রান্না সেরে পড়তে বসেছে,সামনের মাসেই তার এস.এস.সি.পরীক্ষা।শ্বশুর শ্বাশুড়ীর ঘর থেকে রোজকার মতো আজও টিভি সিরিয়ালের শব্দ ভেসে আসছে।ছুটির দিন বলে আদিও আজ ওই ঘরে।পড়তে পড়তে শ্বাশুড়ীর কণ্ঠ ঐশির কানে আসে........

শ্বাশুড়ী :--"দেখ্ দেখ্ বাবু....একে বলে শ্বশুর শ্বাশুড়ীর সেবা...!এই তো একটা মেয়ে...! শ্বশুর শ্বাশুড়ীকে কিভাবে সম্মান করে দেখেছিস....এগুলো তো দেখাবেনা তোর বৌ....সারাদিন শুধু পড়া আর পড়া.....বলি বাপু পড়ার যদি এতোই শখ তা বিয়ে করার কি দরকার ছিল শুনি?"

আদি :--"মা....এই টা একটা সিরিয়াল...!বাস্তবের সাথে মেলালে চলবে?"

শ্বশুর:--"বাস্তব দেখেই তো সিরিয়াল তৈরি হয় বাবু!"

আদি :--তাই যদি বলো তাহলে এই তো দেখো ,এই সিরিয়ালের নায়িকাও তো বিয়ের পর পড়ছে......সেদিন কি যেন একটা সিরিয়াল হচ্ছিল.....সেখানেও তো দেখছিলাম....বিয়ের পর মেয়েটা কে তার বর পড়াশুনা করিয়ে পুলিশ বানাল ।যুগ পাল্টাচ্ছে মা ।"

শ্বাশুড়ী:--"সারাদিন সংসারের সব কাজ সেরে রাত জেগে পড়াশুনা করেও ওরা ফাস্ট হয় ....তোর বৌ এর মতো সন্ধ্যে হলেই ঘুমায় নাকি ?তাছাড়া তোর বৌ কি আর ফাস্ট হতে পারবে?নিজে ভুল করেছিল স্বীকার করে নে বাবা....আমাদের কথা না শুনে ঐ পটের বিবি,রূপসী কন্যা কে ঘরে নিয়ে এসেছিস ......সারাটা জীবন তোর নষ্ট হয়ে গেল !"

আদি :--"ছাড়ো না মা...ঐশি সব সামলে পড়ছে পড়ুক না !তোমাদের সমস্যার কি আছে ?"

শ্বাশুড়ী :--" আমরা কিছু বললেই তো তোরা বলবি বধূ নির্যাতন করছি.....তোরা সব শিক্ষিত ছেলে মেয়ে.....!নির্যাতন কাকে বলে সিরিয়াল গুলোতে দেখিস।পাশের বাড়ির শ্যামলীর মা,কতো টাকা পণ নিয়ে ছেলের বিয়ে দিল অথচ দেখ্ ছেলের বৌ এর চুলের মুঠি ধরে ধান সিদ্ধ করায়.......আমাদেরই কপাল মন্দ..!একটা ভ্যানওয়ালাও মেয়েকে খালি হাতে শ্বশুর বাড়িতে পাঠায় না.....মানলাম যে মেয়ে প্রেম করেছে তাই বলে এভাবে ?"

শ্বশুর :--"ছাড় বাবুর মা...ছাড় !এগুলো তো যে যার কালচার......পেয়েছে আমাদের মতো ভালো মানুষ !বাবুকে বলে আর কি হবে.....ও তো আমাদেরই ছেলে সহজ সরল পেয়ে ঘাড়ে চেপেছে ......!"

আদি :--"তোমরা এবার থামবে দয়া করে ?"

শ্বাশুড়ী :--"থেমেই তো আছি বাবা........বছর তো ঘুরতে চলল এখনো একটা ভালো খবর দিতে পারলনা তোর বৌ.....পড়াশুনো করে কোন সিং এ মাটি খোলে তা দেখার জন্যই তো অপেক্ষা করছি ।"

আদি ঘরে এসে ল্যাপটপ খুলে বসে।ঐশির কানে সব কথাই এসেছে । রোজ দিন এগুলো শুনতে শুনতে ঐশির অভ্যাস হয়ে গেছে.....এখন এগুলো শুনলে ঐশির নিজের পায়ে দাঁড়াবার জেদটা আরো দৃঢ় হয়।সে উঠে গিয়ে শ্বশুর শ্বাশুড়ীকে রাতের খাওয়ার দিয়ে আসে।ঘরে ঢুকে সে আবার পড়তে বসে।আদি যেমন খুব চায় যে ঐশি পড়াশুনা করুক,একটা চাকরী পাক।তেমনই রোজ সে ঐশিকে মনে করিয়ে দেয়......" পড়াশুনার জন্য যেন সংসারে কোনো ফাঁকি না পরে......যতই হোক তুমি কিন্তু ঘরের বৌ!"

আদি :--"কটা বাজে ?বাবা মায়ের তো নটায় খাওয়ার কথা...এখন নটা সতেরো...........কবে যে দায়িত্বশীল হবে...... ?"

ঐশি :--"তোমরা কথা বলছিলে তো,তাই.......!"

আদি :--"তুমি বোধয় ভুলে যাচ্ছ যে তুমি একটা বৌ.....!সবকিছুর আগে সংসারটার কথা ভাবো.......সংসারের প্রতি আরো কেয়ারফুল হও।স্বার্থপরের মতো নিজের টুকু নিয়ে পরে থেকনা।সবসময় বই মুখে বসে না থেকে সংসারে মন দাও আর পারলে সারাদিনে দুই একটা সিরিয়াল দেখো.....সংসারের জন্য মেয়ে গুলো কি করে দেখে শিখো!"

bengali@pratilipi.com
080 41710149
সোশাল মিডিয়াতে আমাদের ফলো করুন
     

আমাদের সম্পর্কে
আমাদের সাথে কাজ করুন
গোপনীয়তা নীতি
পরিষেবার শর্ত
© 2017 Nasadiya Tech. Pvt. Ltd.