স্কুল ছুটির ঘন্টা বেজে যাওয়া সত্যেও ওরা সেদিন স্পর্ধা দেখিয়েছিলো। কোএডুকেশন স্কুলে, অষ্টম-নবম শ্রেণীর পড়ুয়ারা বরাবরই স্পর্ধা দেখানোয় পারদর্শী হয় বটে , কিন্তু সেদিন উচ্ছাসের পারদটা খানিকটা হলেও বাঁধভাঙা ছিল।একটা মজার খেলায় মেতে উঠেছিল ওরা -যার নাম দিয়েছিলো "প্রপোস -প্রপোস খেলা " ..

গণমাধ্যমের সৌজন্যে ভ্যালেন্টাইনডে'র ভূত সদ্য মাথা চারা দিয়ে উঠেছিল বলাই বাহুল্য....ছেলেরা তাদের খাতা থেকে একটি পাতা ছিড়ে 'পেপার-প্লেন' বানাবে , তাতে প্রিয় বান্ধবীর নামের সাথে থাকবে সেই ম্যাজিক্যাল তিনটি শব্দ। সঠিক নিশানায় নিক্ষেপিত হওয়ার পর , তাদের সেই বান্ধবীরা মুখে -"নো ওয়ে" বলে পত্রপাঠ পেপার-প্লেনটি ক্লাস রুমের জানলার বাইরে নিক্ষেপ করবে। এই সামগ্রিক বিষয়টি যেই জুটি সবার আগে করে উঠতে পারবে তারাই বিজিত হবে। এই আপাত নিরীহ খেলাটাই বেশ জমে উঠেছিল, শুধু বাধ সাধলো রূপম - রূপাঞ্জলির মধ্যে অকারণ ঘটে যাওয়া ঠুনকো অশান্তিতে! রূপমের বক্তব্য ছিল সেই সর্বাগ্রে সঠিক নিশানায় পেপার-প্লেনটি নিক্ষেপ করেছিল , ঐদিকে রূপাঞ্জলির বক্তব্য ছিল সে কোনো 'পেপার-প্লেন' পাইনি বলেই জানলার বাইরে নিক্ষেপ করতে পারেনি। যাইহোক , ফলস্বরূপ দুজনেই ডিসকোয়ালিফাই হলো খেলাটা থেকে। কথার পৃষ্ঠে কথা কাটাকাটিতে দুজনের বন্ধুত্ত্বটাও ম্লান হলো। আসল সত্যিটা চাপা পরে রইলো পুরোনো ডাইরির ভাঁজে। হম ,ঠিকই ধরেছেন। রূপাঞ্জলি মনে মনে রূপমকে খুবই পছন্দ করতো। ভালোবাসার গভীরতা বোঝার ক্ষমতা এতো অল্প বয়সে না থাকলেও, রূপম'ই ছিল তার সবচেয়ে প্রিয় বন্ধু , প্রিয় মানুষ। তাই যতই খেলা হোক না কেনো ,তবুও রূপমের লেখা সেই ম্যাজিক্যাল তিনটি শব্দকে সবার সামনে তাচ্ছিল্য সূচক হাওয়ায় ভাসিয়ে দিতে পারেনি সেদিন। ..অব্যক্তই রয়ে গেছিলো, প্রকাশ করতে না পারা নিজস্ব অনুভূতিটা। বছর খানেকের মধ্যেই পাল্টে গেল দুজনের ক্যারিয়ার গ্রাফটাও। রূপাঞ্জলি আর্টস নিয়ে ভর্তি হলো 'সারদা গার্লস' স্কুলে। ওপরদিকে রূপম খুব মেধাবী ছাত্র হওয়ায় বাড়ির লোকেরা সগৌরবে তাকে সাইন্স স্ট্রিম নিয়ে ভর্তি করলো ডিরোজিও বয়েসে। রূপম কোনোদিনই জানতে পারলোনা রূপাঞ্জলির মনের অনুভূতিটা। দূরত্ব-ব্যবধান-সময়-জীবনপ্রবাহ, আস্তে আস্তে রূপাঞ্জলির মন থেকেও রূপমের আবছা স্মৃতিটাকে অনেকটাই দূরে রাখতে সক্ষম করেছিল। .... এরপর কেটে গেছে বহু বছর। রূপাঞ্জলি তখন বিবাহযোগ্যা ,সম্বন্ধ দেখা শুরু হয়েছে। হঠাৎই নিয়তির অদ্ভুত পরিহাস রূপাঞ্জলিকে কাকতালীয় ভাবেই বিদ্ধ করলো আচমকা এক দমকা হাওয়ায়। যেই পাত্রের সাথে বিয়েটা ঠিক হলো তার নামও রূপম। যদিও সেই চশমা পড়া চঞ্চল সাইন্সের স্টুডেন্ট রূপমের সাথে এই রূপমের সবেতেই বিস্তর ফারাক। এই রূপম প্রেসিডেন্সি কলেজের এক সন্মানীয় ইংরেজীর প্রফেসর। রূপাঞ্জলির মনে অজান্তেই পুরোনো স্মৃতিগুলো বড্ডো ফিরে আসছিলো। যেই 'পেপার-প্লেন'টা সযত্নে রাখা থাকতো পুরোনো ডাইরির পাতার ভাঁজে ,হঠাৎই বারংবার সেটাকে বার করে দেখতো আর মনে মনে খুঁজতো তার সেই পরমপ্রিয় বন্ধু রূপমকে। বাড়ির সকলের মতের বাইরে যাওয়ার স্পর্ধা দেখানোর মতো মেয়ে নয় সে ,তাই চোখের মধ্যে স্মৃতির বৃষ্টি নামলেও বিয়ের প্রস্তাবটা মেনেই নিলো কার্যত বাধ্য হয়েই। যেদিন পাকা দেখা সাঙ্গ হলো বিয়ের দিন নির্ধারিত হওয়ার মাধ্যমে ,সেদিন হবু স্বামীর সাথে একান্ত কিছু মুহূর্ত কথা বলার সুযোগ হয়েছিল তার। আপনি -আজ্ঞে করে বাচিক আলাপচারিতা ঠিকঠাক চললেও, বারংবার স্মৃতির মনিকোঠায় কড়া নাড়ছিলো তার 'সেই রূপম'-এর মুখটা। হাতের ভাঁজে শক্ত করে ধরা ছিল পুরোনো সেই প্রিয় ডায়েরিটা , কিন্তু ছন্দপতন ঘটলো হবু স্বামীর অস্ফুটে করা এক প্রশ্নে - "কখনো প্রেমে পড়েছেন ?" ..রূপাঞ্জলির বুকের ভেতরে কেউ যেন অজান্তেই কষাঘাত হানলো। হাত থেকে পরে যাওয়া ডাইরিটা উপেক্ষা করেই নিজেকে সামলাতে কোনো রকমে ঘরের বন্ধ জানলার কাছে এসে দাঁড়ালো সে। মুহূর্তের নিরাবতা কাটলো যখন জানলায় আঘাত পেয়ে তার সামনে একটা মোচড়ানো কাগজ এসে পড়লো। কাগজটা দেখে চিনতে অসুবিধা হলোনা যে সেটাই সেই এতদিন করে যত্নে রাখা 'পেপার-প্লেন'টা। এতকাল ধরে আগলে রাখা একটা অতীত হবু স্বামী জেনে ফেললো ? এই আশঙ্কায় পিছনে ফিরে সে দেখলো : ঘর ফাঁকা , কেউ নেই ঘরে। বাড়ির সকলে বুঝে যাওয়ার আগে কোনোরকমে দরজায় ছিটকিনি টেনে বালিশে মুখ লুকিয়ে ফুঁপিয়ে উঠলো রূপাঞ্জলি। হাতের মুঠোয় রাখা মোচড়ানো পেপার-প্লেনটাকে এবার ছিড়ে ফেলে বিদায় জানানোর সময় এসেছে বুঝতে পারলো সে। তবু ,শেষ বারের মতো দেখতে মন চাইলো সেই ম্যাজিক্যাল তিনটি শব্দ ,যেটা 'তার রূপম' এর শেষ স্মৃতি হিসেবেই এতদিন ছিল তার কাছে । দু’চোখ ভরে শেষ বারের মতো শব্দ গুলোকে অনুভব করার সময়, পাতার নিচে অপেক্ষাকৃত ছোট হরফে লেখা একটা টাটকা লাইনে চোখ পড়লো তার- ...'আমি ছিলাম, আমিই আছি, আমিই থাকবো তোর সাথে' !


==========================================================================

bengali@pratilipi.com
080 41710149
সোশাল মিডিয়াতে আমাদের ফলো করুন
     

আমাদের সম্পর্কে
আমাদের সাথে কাজ করুন
গোপনীয়তা নীতি
পরিষেবার শর্ত
© 2017 Nasadiya Tech. Pvt. Ltd.