ছোটবেলা থেকে আমরা রাজা রানী্র গল্প শুনে বড় হয়েছি। গল্পের শেষে রাজা রানীর মিলটাই আমরা শুনতে ভালোবাসি। আজকের গল্পের রানী মানে নায়িকা- বেদিকা। বেদিকা খুব সাজতে ভালোবাসে। এমনি তেই বেদিকা বড় ঘরের বউ, সবসময় সেজে থাকাই নিয়ম। তারওপর বেদিকার বর ও এটাই পছন্দ করে যে বউ সবসময় সেজে থাকবে। আজ বেদিকা খুব খুশি, কোন কারন ছাড়াই। বেদিকা চাঁদ দেখতে ভালোবাসে নিজের জানলায় বসে, ছাদ থেকে না। ছাদের চাঁদ মনে হয় সবার জন্য , কিন্ত জানলার চাঁদ বেদিকার নিজস্ব। সব ঘরের কাজ সেরে যখন ঘরে এলো, দেখল রাঘব, বেদিকার স্বামী, ঘুমিয়ে কাদা। রাগ হল খুব, কারন সারাদিনে এই সময় টাই একটু কথা বলার অবসর।কিন্ত রোজ এই হয়, রাঘব ঘুমিইয়ে পড়ে। বেদিকা যৌথ পরিবারের বড় বউ। এমনিতে কোন কাজ নেই। কিন্ত সব বাচ্চাদের দেখাশোনা ওই করে। তিন ভাই এর মধ্যে রাঘব বড়।

বেদিকা রোজই রাতে বাচ্চাদের ঘরে যায় তাদের যা কিছু আবদার,নালিশ শোনে তারপর সবার সবকিছুর সমাধান করে ঘরে আসে। কিন্ত রোজই রাঘব ঘুমিয়ে পড়ে। দাম্পত্য কি শুধু শরীরের প্রেম, সেখানে যে মনের সম্পর্ক সবচেয়ে জরুরি সেটা পুরুষ মানুষ কখনই বোঝেনা।বেদিকা ঘরে ঢুকে জানলার কাছে চেয়ার টেনে বসলো। রাঘব একদম বাচ্চাদের মত ঘুমাচ্ছে। মনে হচ্ছে গিয়ে জাগিয়ে একটু গল্প করি। কিন্ত ইচ্ছেটা মনেই থেকে গেল। রাঘব পচ্ছন্দ করেনা , ঘুমোলে কেউ বিরক্ত করে। বাইরে থেকে সানাই এর আওয়াজ আসছে। বেদিকার আজ শুধুই প্রভাকর কে মনে পড়ছে। প্রভাকর বেদিকার ফেসবুক ফ্রেন্ড। প্রভাকর এই গল্পের নায়ক। বেদিকা কম্পু্টার চালানো শিখেছে নিজের বাচ্চাদের কাছে, তারপর ফেসবুকে অ্যাকাউন্ট খুলেছে এই এক বছর হলো।

তখনই প্রভাকরের সাথে আলাপ।জানলার চাঁদ কখন যেন বেদিকার অন্দরমহলে ঢুকে গেছে। বেদিকা ভাবতে লাগল, এই বয়সে মনের এই চাঞ্চল্য কি ঠিক?যখন নিজের ছেলে মেয়েদের প্রেম করার বয়স, তখন ও এই বয়সে প্রেম নিয়ে ভাবছে। কিন্ত এই জন্য কি ও শুধু একাই দোষী? রাঘবই তো এর জন্য দায়ী। বিয়ের পরপর যখন বাইকে রাঘবের পেছনে বোসে কোমর জরিয়ে ধরতে গেছিল, অমনি বকুনি জুটেছিল কপালে। কি বড় ঘরের বউদের এসব শোভা পায়না। সেদিন থেকে বেদিকা রাঘবের সাথে মনের দিক থেকে একটু একটু করে সরে এসেছে। রাঘব তারপর অনেক চেষ্টা করেছে কিন্ত সে মন আর জোড়া লাগেনি। প্রভাকরের সাথে কথা বলে বেদিকার সেই সব অনুভূতি ফিরে আসে। ভালো লাগে ঘন্টার পর ঘন্টা কথা বলতে , সময় কাটাতে। কিন্ত আজ বেদিকার মনে হচ্ছে, এটা ঠিক না। ভাবল চাঁদ দূরে থাকাই ভালো। ঘরে ঢুকে গেলে তার আকর্ষণ শেষ হয়ে যায়। এই ভেবে বেদিকা ফোন পাশে রেখে নিশ্চিন্তে ঘুমিয়ে পড়ল।

bengali@pratilipi.com
+91 9374724060
সোশাল মিডিয়াতে আমাদের ফলো করুন
     

আমাদের সম্পর্কে
আমাদের সাথে কাজ করুন
গোপনীয়তা নীতি
পরিষেবার শর্ত
© 2017 Nasadiya Tech. Pvt. Ltd.